SSC 2021 Civics Assignment Answer

SSC 2021 Civics Assignment Answer: Directorate of Secondary and Higher Secondary Education is published the SSC 2021 Assignment Answer for CIVICS Subject. The Assignment, question with solutions, answer are available at dshe.gov.bd.

SSC 2021 Civics Assignment Answer:

DSHE is published SSC Civics Assignment Answer 2021 on dshe.gov.bd. Lets see the content and assignment work for all three weeks.

Class: Ten
Exam year: 2021
Subject: Civics
Group: Humanities

Assignment No: 1

Assignment Work: বর্তমান বিশ্বে নিম্নোক্ত পরিবার ব্যবস্থা দেখা যায়।

  •  বংশ গণনা ও নেতৃত্বের ভিত্তিতে পিতৃতান্ত্রিক ও মাতৃতান্ত্রিক পরিবার। 
  • পারিবারিক কাঠামোর ভিত্তিতে যৌথ পরিবার
  • বৈবাহিক সূত্রের ভিত্তিতে  একপত্নীক, বহুপত্নীক ও বহুপতি পরিবার

বাংলাদেশের বিদ্যমান উপরোক্ত পরিবার ব্যবস্থার মধ্যে কোন কোন ধরনের পরিবার দেখা যায় ও দেশে কেন যৌথ পরিবার হ্রাস পাচ্ছে এবং একক পরিবারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।  একটি আদর্শ পরিবারের কার্যাবলী ব্যাখ্যা করো । 

Learning Outcomes:

  • পরিবার,সমাজ, রাষ্ট্র ও সরকারের ধারণা ব্যাখ্যা করতে পারবে
  • পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র ও সরকারের সম্পর্ক বিশ্লেষণ করতে পারবে

Instruction to students for writing the assignment answer:

 পাঠ্যপুস্তক, শিক্ষক কিংবা ইন্টারনেট থেকে সহায়তা নেয়া যেতে পারে

  • পরিবারের ধরন ব্যাখ্যা  করতে হবে
  • পরিবারের শ্রেণীবিভাগ ব্যাখ্যা করতে হবে
  • পরিবারের কার্যাবলী ব্যাখ্যা করতে হবে
  • যৌথ পরিবার হ্রাস এবং একক পরিবারের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণ  ব্যাখ্যা করতে হবে
  • আদর্শ পরিবার এর কার্যাবলী ব্যাখ্যা করতে হবে। 
SSC 2021 Civics Assignment Answer:

SSC 2nd Week Civics Assignment Answer 2021

DSHE is published the 2nd week SSC Civics Assignment Answer on dshe.gov.bd; Lets check the assignment answer from below:

Question Part: বাংলাদেশে বিদ্যমান পরিবার ব্যবস্থা এবং আদর্শ পরিবারের কার্যাবলী

বাংলাদেশের পরিবারগুলাের মধ্য থেকে যৌথ পরিবার ভেঙ্গে একক পরিবার বৃদ্ধির কারণ এবং আদর্শ পরিবারের কার্যাবলিঃ


পরিবার সমাজ স্বীকৃত বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয় স্বামী – স্ত্রীর একত্রে বমবাম করাকে পরিবার বলে। ম্যাকাইভারের মতে, সন্তান জন্মদান ও লালন – পালনের জন্য মংগঠিত ক্ষুদ্র বর্গকে পরিবার বলে। আমাদের দেশে সাধারণত মা – বাবা, ভাই – বােন, চাচা – চাচিও দাদা – দাদির। আর এই মূলত স্নেহ, মায়া, মমতা, ভালােবাসার বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে গঠিত ক্ষুদ্র সামাজিক প্রতিষ্ঠান।


বাংলাদেশের পরিবারের ধরণঃ 

বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে পরিবারের বিভাজন করা হয়ে থাকে।  নিম্নে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে পরিবারের বিভাজন সম্পর্কে আলোচনা করা হলোঃ 

কর্তৃত্বের মাত্রা ভিত্তিকঃ পরিবার কর্তৃত্বের মাত্রা অনুযায়ী বাংলাদেশের পরিবার কে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথাঃ পিতৃতান্ত্রিক পরিবার এবং মাতৃতান্ত্রিক পরিবার

যে পরিবারে কর্তৃত্ব পিতার স্বামী বা অন্য কোন পুরুষের নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হয় তাকে পিতৃতান্ত্রিক পরিবার বলে।  বাংলাদেশে এ ধরণের পরিবার ব্যবস্থা সর্বত্র বিদ্যমান। পরিবার যখন মাতা বা  কোন নারী সদস্য দ্বারা পরিচালিত হয় তখন তাকে মাতৃতান্ত্রিক পরিবার বলে। বাংলাদেশে ক্ষুদ্র নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর মধ্যে এ ধরনের পরিবার দেখা যায়। 

আকার বা কাঠামো অনুসারে পরিবারঃ পরিবারের আকার বা কাঠামো অনুসারে অনুসারে পরিবারে কে তিন ভাগে ভাগ করা যায়।  যথাঃ অনু পরিবার, যৌথ পরিবার, এবং বর্ধিত পরিবার। 

স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যা বা বিবাহের ভিত্তিতে পরিবারঃ স্বামী স্ত্রীর সংখ্যা বা বিবাহের ভিত্তিতে বাংলাদেশের পরিবারকে একক বিবাহ ভিত্তিক পরিবার এবং বহু স্ত্রী  ভিত্তিক পরিবার এই দুই ভাগে ভাগ করা যায়। 

একক বিবাহ ভিত্তিক পরিবারের হলো একজন পুরুষ এবং একজন মহিলার বিবাহের মাধ্যমে গঠিত পরিবার । এটি হচ্ছে বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ পরিবারের প্রধান রুপ। 

বহু স্ত্রী  ভিত্তিক পরিবার হলো একজন পুরুষ একাধিক মহিলার সাথে বিবাহের ভিত্তিতে পরিবার।  সংখ্যায় কম হলেও বাংলাদেশে এ পরিবার রয়েছে। 


সুতরাং উপরিউক্ত আলােচনা থেকে বলা যায় আমাদের দেশের পরিবারগুলাের মধ্যে পিতৃতান্ত্রিক পরিবার, একক পরিবার, যৌথ পরিবার, একপত্নীক পরিবার এবং বহুপত্নিক পরিবার দেখা যায় তবে বাংলাদেশে বসবাসকারী ক্ষুদ্র জাতিসত্তার মধ্যে মাতৃতান্ত্রিক পরিবারও দেখা যায়। কিন্তু দেশে বহুপতি পরিবার দেখা যায় না।


যৌথ পরিবার হ্রাস এবং একক পরিবারের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণঃ আমরা জানি, দাদা – দাদী, স্বামী – স্ত্রী, ভাই – বােন, ছেলে – মেয়ে ইত্যাদি নিয়ে গঠিত যৌথ পরিবার। আর একক পরিবার মা – বাবা ও ভাই বোন নিয়ে গঠিত হয়। বর্তমানে কালের পরিক্রমায় যৌথ পরিবার হ্রাস পেয়ে একক পরিবার বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর পেছনে রয়েছে নানাবিধ কারণ। যেমন :

(i) সীমিত অর্থনৈতিক যােগানদাতা : একটি যৌথ পরিবার অনেকগুলাে মানুষ নিয়ে গঠিত, যার লােক সংখ্যা ১০ থেকে ১৫ জন অথবা তার উর্বে থাকলেও অনেক যৌথ পরিবারে অর্থনৈতিক যােগানদাতা মাত্র ২ থেকে ৪ জন থাকেন আবার তাদের আয়ের পরিমাণও সমান না। এ অবস্থায় যৌথ পরিবার থেকে পরিবার চালনা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য হয়। এমনকি তারা নিজের এবং নিজের স্ত্রী সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই যৌথ পরিবার ভেঙ্গে মা, বাবা, দাদা, দাদী অন্যান্য সদস্যদের ছেড়ে একক পরিবার গঠনের চিন্তা করেন।


(ii) ব্যক্তি স্বার্থপরতা : যৌথ পরিবারের অর্থনৈতিক যােগানদাতা ব্যক্তিগণ অনেক সময় সবার সাথে মিলেমিশে যৌথ সম্পত্তি গড়ে তােলার পাশাপাশি, যৌথ পরিবারের সদস্যদের অজান্তে নিজের, নিজের স্ত্রী অথবা সন্তানের নামে আলাদা সম্পত্তি গড়ে তুলেন।পরবর্তীতে তা পরিবারের অন্যান্য সদস্য গনের মধ্যে জানাজানি হলে ঝগড়ার হয় আর যৌথ পরিবার ভেঙ্গে যাওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়।


(iii) কর্মজীবীদের সংখ্যা বৃদ্ধি : পরিবারের কর্মজীবী সদস্যদের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে কর্মজীবী সদস্যগণ চাকুরীর সুবাদে দীর্ঘদিন তাদের যৌথ পরিবারের বাহিরে দেশ – বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকতে হয় ৷ ফলশ্রুতিতে এক সময় তাদের মধ্যে যৌথ পরিবারে থাকার আগ্রহ কমে যায় বা তাদের সন্তানাদি মা-বাবার সাথে একক পরিবারে থাকতে অভ্যস্ত থাকায় তারা আর যৌথ পরিবারে ফিরে আসতে চায় না। ফলে যৌথ পরিবার ভেঙ্গে যেতে থাকে। 


(iv) ব্যক্তিগত আধিপত্য বিস্তার : বর্তমান সমাজে যৌথ পরিবার ভেঙ্গে যাওয়ার অনুতেম প্রধান কারণ হলাে ব্যক্তিগত আধিপত্য বিস্তার। পরিবারের প্রত্যেক ব্যক্তি চান পরিবারের সকল সদস্যকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখতে। ফলে একক পরিবার বৃদ্ধি পায়। 


একটি আদর্শ পরিবারের কার্যাবলি : সব পরিবারই তাদের দৈনন্দিন জীবনে নানাবিধ কার্যাবলি করে থাকে। কিন্তু একটি আদর্শ পরিবারের কার্যাবলি হয় অনেক গুছানাে এবং নিয়ন্ত্রিত নিচে আদর্শ পরিবার এর কার্যাবলী আলোচনা করা হলো :


মিলেমিশে থাকা একটি আদর্শ পরিবারের অন্যতম কার্যাবলি হলাে পরিবারের সকলই মিলেমিশে একত্রে বাস করা। আর একাজটাই একটি আদর্শ পরিবার করে থাকে।


শৃঙ্খলা বোধ : পরিবারের সবাই একটা নির্দিষ্ট শৃঙ্খলার মধ্যে বাস করে। তারা বিভিন্ন ধরনের অনৈতিক কাজ হতে নিজেদের বিরত রাখে এবং শান্তিতে বসবাস করে।


মানসিক শক্তি বৃদ্ধি : পরিবারের কারও বিপদে পরিবারের অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ তাকে মানসিকভাবে চাঙ্গা করে ফলে সে তার বিপদ হতে দ্রুত সেরে উঠতে পারে।


সহযোগী মনোভাব : একটি আদর্শ পরিবারের লোকজন সর্বদা একে অন্যের প্রতি সহযােগী মনােভাব প্রকাশ করে। কেউ বিপদে পড়লে তাকে সাহায্যের কমতি থাকে না।ক্ষমাপূর্ণ মনােভাব পরিবারের কেউ ভুল কাজ করে থাকলে তাকে শাস্তি না দিয়ে বুঝানাের মাধ্যমে ক্ষমা করে দেওয়ার মনােভাব একটি আদর্শ পরিবারের অন্যতম কার্যাবলি।


একে অপরকে সময় দেওয়া : এই আধুনিক যুগে সবাই এখন যন্ত্র হয়ে গেছে কিন্তু একটি আদর্শ পরিবার এর ক্ষেত্রে অন্যতম কার্যাবলি পরিবারের সব সয়মই একে অন্যকে যথেষ্ট পরিমাণ সময় দেয়।
উপরিউক্ত ভাবে একটি আদর্শ পরিবার তাদের কার্যাবলী সম্পাদন করে এবং সুখ-শান্তির সহিত বসবাস করে।

Note: We are updating…

Source: DSHE

For more information, Visit- dshe.gov.bd. You may check other Subject Assignment Answer From here-

SSC Assignment 2021


SSC Assignment 2022

2 thoughts on “SSC 2021 Civics Assignment Answer”

Leave a Comment

Exam Result Hub
----
error: Content is protected !!